বিজেপি

দেশ থেকে এক মাসে ১ লক্ষ কোটি টাকার GST পাওয়ায় সাধারণ মানুষকে উপহার দিতে চলেছে মোদী সরকার।

গতকাল ফাইন্যান্স মিনিস্টার জানিয়েছেন বিগত এপ্রিল মাসে সরকার ১ লক্ষ কোটি টাকা GST সংগ্রহ করেছে। এই পরিমান ট্যাক্স মাত্র ১ মাসে সংগ্রহ করেছে সরকার। এইভাবে চলতে থাকলে সরকার বছরে ১২ ট্রিলিয়ন ডলার পর্যন্ত GST সংগ্রহ করতে পারে। প্রসঙ্গত, সরকার ২০১৭ তে সরকার ১০ লক্ষ কোটি টাকা GST সংগ্রহ করে ইতিহাস গড়েছে। তবে এই বিপুল পরিমান ট্যাক্স সংগ্রহের পর সরকার সাধারণ মানুষের জন্য কিছু সুখবর আনতে পারে বলে জানা যাচ্ছে।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী ৪ই মে GST কাউন্সিল একটা বৈঠকে বসতে চলেছে। GST এর এই বৈঠককে খুবই গুরুত্বপূর্ণ মনে করা হচ্ছে। GST এর বৈঠক কর্ণাটক নিরবাচনকেও প্রভাবিত করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। বৈঠকের পর নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম সস্তা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। বিশেষ করে চিনি বা চিনি থেকে তৈরী বিভিন্ন খাদ্যের দাম কমতে পারে। অন্যদিকে পেট্রল ডিজেলের দাম নিয়েও অনেকটা চিন্তায় রয়েছে সাধারণ মানুষ। সেই বিষয়েও খুশির খবর শোনাতে পারে কেন্দ্র সরকার। কেন্দ্র সরকার চাইছে পেট্রোল ডিজেলকে GST এর অন্তরগত করতে। কারণ GST এর মধ্যে পেট্রল ডিজেলকে করলে দামে অনেকটা ঘাটতি হবে। কিন্তু কিছু রাজ্য কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে কারণ পেট্রোল ডিজেলে GST চালু হলে , সাধারণ মানুষ লাভবান হলেও রাজ্যে সরকারের লাভের পরিমান কমে যাবে। এ সত্ত্বেও ৪ই মে কিছু সুখবর শোনা যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।
এছাড়াও যেসব ব্যাবসায়ীরা ও গ্রাহকরা ডিজিটাল পেমেন্ট ব্যবহার করবে তারা দামে বিশেষ কিছু ছাড় পেতে পারে। সরকার এই বিষয়ে আলোচনা শুরু করেছে বলেও জানা গেছে। এছাড়াও সরকার ট্যাক্স পূরণ করার ফ্রমেও কিছু পরিবর্তন করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। যেখানে ছোট থেকে বড়ো ব্যাবসায়ীদের নানা সুযোগসুবিধা প্রদান করা হবে এবং এতে GST এর থেকে প্রাপ্ত অর্থের পরিমান বাড়তে পারে বলেও মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

তবে এই সমস্থকিছুই কর্ণাটক নির্বাচনের পর ঘোষণা করা হতে পারে বলে সূত্রের খবর।

Facebook Comments
15K Shares
Tags

Related Articles

Close