বিজেপি

মসজিদের স্থানে আগে ছিল লক্ষণের মন্দির তাই মসজিদের সামনে মন্দির তৈরি করার প্রস্তাব বিজেপির।


বিজেপির তরফ থেকে একটি প্রস্তাব আনা হয়েছে যে তারা একটি লক্ষনের মূর্তি বসাতে চাই। এবং সেটি তারা যেখানে বসানোর কথা ভাবছেন সেই জায়গাতে একটি মসজিদ রয়েছে। আর তাতেই আপত্তি জানানো হয়েছে মুসলিম সম্প্রদায়ের তরফ থেকে। তারা অভিযোগ জানান যে এর ফলে প্রার্থনা করতে আসা মানুষদের অসুবিধা হবে।

তারা এই মূর্তি বসানোর প্রস্তাব নিয়েছেন উত্তরপ্রদেশের বিখ্যাত ও ঐতিহাসিক তিলি ওয়ালি মসজিদে প্রবেশের সামনেই একটি বিশেষ জায়গা তে। এই ব্যাপারটিতেই সায় নেই মসজিদ কর্তৃপক্ষের। তারা জানিয়েছেনন যে এই মূর্তি বসানো হলে মসজিদে ঢুকতে ও বেরতে তাদের অসুবিধা হবে। তাছাড়া তাদের অসুবিধার প্রধান কারন হল ইসলামে মূর্তির সামনে নামাজ পরার অনুমুতি নেই।
লখৌ পুরসভা এই মূর্তি বসানোর সিদ্ধান্তে সিলমোহর দিয়েছেন। বিজেপি নেতা রাম কৃষ্ণ যাদব ও রজনীশ গুপ্তা এই প্রস্তাবটি কে পাশ করেন এবং শোনা যাচ্ছে যে খুব তাড়াতাড়ি বিধানসভাইই এই প্রস্তাব পেশ করা হবে। অপর দিকে মসজিদ কর্তৃপক্ষ জানান যে বিজেপি যদি তাদের আপত্তি কে গুরুত্ব না দেয় তাহলে তারা সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এর দারস্ত হবেন।

লক্ষনের মূর্তি কেন বসানো হবে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে প্রস্তাবকারী রাম কৃষ্ণ যাদব জানান যে এটা নিয়ে বিতর্কের তো কিছু নেই লখৌ শহরের সাথে জড়িয়ে আছে ভগবান লক্ষনের নাম। এবং তিনি বলেন যে এই মসজিদটি যেখান রয়েছে সেখানেই আগে ছিল লক্ষনের তিলা নামে একটি মন্দির। এবং খুব ভালো ভাবেই সেখানে পুজা করা হত ভগবান লক্ষনের তাই তারা এখনে লক্ষনের একটি মূর্তি বসাতে চান। এবং তিনি আরও বলেন যে খুব তাড়াতাড়ি লখৌ এর নাম পরিবর্তন করে লক্ষনপুরি করার প্রস্তাব পেশ করা হবে।
#অগ্নিপুত্র

Facebook Comments
Tags

Related Articles

Close