মহান ভারত

কংগ্রেসের গালে সাঁটিয়ে চড় জনতার , রাজ্যে আবার গাওয়া হবে “বন্দে মাতরম “

নতুন বছর শুরুর প্রথম দিনেই ১৪ বছরের পুরনো নিয়মের ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে দেশ জুড়ে বিতর্ক সৃষ্টি করেছিলেন মধ্য প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা কট্টরপন্থী কংগ্রেস নেতা কমল নাথ।

তবে তার সেই আশা পূর্ণ হল না। দেশ জুড়ে এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় উঠতেই মাত্র দুই দিনের মাথাতেই আগের সিদ্ধান্ত থেকে ফিরে আসলেন কংগ্রেসের এই বিতর্কিত মুখ্যমন্ত্রী।

আজ সরকারের তরফে জানিয়ে দেওয়া হল যে রাজ্য বিধানসভায় আগের থেকেও আরও জাগজমক করে গাওয়া হবে বন্দে মাতরম, আর এবার তাদের সঙ্গে থাকবে রাজ্য পুলিশের ব্যান্ড।

তবে কংগ্রেসের বন্দে মাতরম গানের প্রতি ঘৃনা, আজকের নয়, দেশ যখন স্বাধীনতার লড়াই লড়ছে তখন প্রতিটা বিপ্লবীর মুখে ছিল এই গান। এর মধ্যে এক শক্তি অন্তর্নিহিত ছিল যেই কারণে হাজার হাজার বিপ্লবী বন্দে মাতরম ধ্বনি দিয়ে ফাঁসির কাঠে ঝুলে গিয়েছিল।

তবে দেশ স্বাধীন হওয়ার পর এটাকেই দেশের জাতীয় সঙ্গীত হওয়ার কথা থাকলেও একটি বিশেষ ধর্মের তরফে এই গানের বিরুদ্ধে আপত্তি জানানো হয়। আর প্রত্যাশিত ভাবেই কংগ্রেস মেনে নেয় এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লেখা জন গন মন কে জাতীয় সঙ্গীত হিসাবে গ্রহণ করা হয় যেটি দেশ স্বাধীন হওয়ার অনেক আগে লেখা হয়েছিল এবং যার প্রেক্ষাপট সম্পূর্ণ আলাদা ছিল।

Facebook Comments
12K Shares

Related Articles

Close