রাজনীতি

সততার পুরস্কার, তৃণমূল থেকে বহিষ্কৃত সাংসদ অনুপম হাজরা

একই দিনে দুই সাংসদকে দল থেকে ছাঁটাই, একজন হলেন বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ, যিনি আগেই দিল্লীতে গিয়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছিলেন, আরেকজন হল বোলপুরের সাংসদ অনুপম হাজরা।

আজ তাদের দুজনকেই দল থেকে বহিষ্কারের কথা জানান তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কারণ হিসাবে তিনি বলেন যে এই দুই সাংসদই লাগাতার দল বিরোধী কাজ করছিলেন।

তবে এটা যে আসল সত্যি না তা খুব ভালো করেই জানেন এই দুই সাংসদের এলাকার লোকেরা। চোরে ভরা তৃণমূলে যেখানে বহু সাংসদ, বিধায়কের নাম জড়িয়েছে নারদা,সারদা সহ একাধিক চিট ফান্ড এবং দুর্নীতির মামলায়, তখন এই সব বিতর্ক ছুঁতেও পারেনি এই দুই সাংসদকে।

সাধারণ খোলাখুলি কথা বলতে পছন্দ করেন অনুপম হাজরা। এর জন্য তিনি দলের গাইডলাইনকেও পরোয়া করেন না। উচ্চ শিক্ষিত এই সাংসদ অসম থেকে ডক্টরেট করেছেন, বর্তমানে তিনি বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করেন।

বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের সাথে তার বিরোধীতা কারোর কাছে গোপন নেই। এক সময় তারই নির্দেশে অনুপম হাজরাকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকতে বাধা দিয়েছিল তারই দলের কর্মীরা। তাই মনে করা হচ্ছে যে তাকে দল থেকে তাড়ানোর পেছনে অনুব্রত মন্ডলেরই হাত থাকতে পারে।

এদিকে বহিষ্কারের পর তিনি বিজেপিতে যোগ দেবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি আপাতত এই নিয়ে কিছু বলতে চাননি।

Facebook Comments

Related Articles

Close